1. admin@dainiksangbaderkagoj.com : admin :
  2. mahadihasanchamak@gmail.com : Azizul islam : Azizul islam
বিএনপি ক্যাডার আমজাদ হোসেনই পৌরবাসীর অশান্তির মূর্ত প্রতীক: মহেশখালীতে সংবর্ধনা অনুষ্টানে বক্তারা - দৈনিক সংবাদের কাগজ
২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| বর্ষাকাল| শুক্রবার| সকাল ৯:১৩|

বিএনপি ক্যাডার আমজাদ হোসেনই পৌরবাসীর অশান্তির মূর্ত প্রতীক: মহেশখালীতে সংবর্ধনা অনুষ্টানে বক্তারা

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, মার্চ ৪, ২০২২,
  • 107 Time View

 

ইঞ্জিনিয়ার হাফিজুর রহমান খান, কক্সবাজার: মহেশখালী পৌর নির্বাচনে নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করা আওয়ামীলীগের দলীয় নেতা কর্মী ও সমর্থকদের বিরুদ্ধে কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী মাওলানা ওসমানের আপন ছোট ভাই ও যুদ্ধাপরাধী কারান্তরীন বাদশা মিয়া মেম্বারের আপন ভাগিনা, জামায়াত নেতা জামাল হোসেনের আপন ভাই গত পৌরসভা নির্বাচনে মাত্র ৮২ ভোট পাওয়া বিএনপি নেতা আমজাদ হোসেনের করা মামলায় দীর্ঘ দেড় মাস কারাবরণ শেষে জামিনে মুক্তি পাওয়া ছাত্রলীগ-যুবলীগ নেতা ৭ জনকে নিয়ে বিশাল গণসংবর্ধনার আয়োজন করে মহেশখালী পৌরসভা নাগরিক কমিটি।

আজ ০৪ মার্চ ২০২২ শুক্রবার বিকাল ৪ টায় গোরকঘাটা বাজারের চৌরাস্তা মোড়ে এই বিশাল গণসংবর্ধনা সভা অনুষ্ঠিত হয়।

সংবর্ধনা অনুষ্ঠানে মহেশখালী পৌরসভা ৫ নং ওয়ার্ড যুবলীগের সভাপতি আজিজুল হক বলেন, বিএনপি ক্যাডার আমজাদ হোসেন পৌরসভা নির্বাচনে পরাজিত হয়ে জামাত-বিএনপির চক্রান্তে পুরো মহেশখালী পৌর আওয়ামীলীগ পরিবারসহ নৌকার প্রার্থীর পক্ষে কাজ করা বহু লোককে আসামি করে মামলা দায়ের করে শান্ত পৌরসভাকে অশান্তির রাজ্যে পরিণত করার পায়তারা করছে। এটা পৌর আওয়ামীলীগকে ধ্বংস করার এক মহা চক্রান্ত বলে আমরা মনে করি।

মহেশখালী পৌরসভায় অবস্থিত গোরকঘাটা উচ্চ বিদ্যালয় ছাত্রলীগ সভাপতি মোঃ আশরাফ বলেন, বিএনপি নেতা আমজাদ হোসেনকে রাতের আঁধারে জামাত অধ্যুষিত এলাকা লিডারশীপ কলেজের সামনে কে বা কারা হামলা করেছে কেউ দেখেনি ৷ ঘটনার পরপরই কুখ্যাত যুদ্ধাপরাধী মাওলানা ওসমানের ভাগিনা ডাক্তার হাশেমের ছেলে মালয়েশিয়া থেকে লাইভে বক্তব্য করা,জামাত শিবিরের নেতারা তা শেয়ার করা, জামাত-বিএনপি’র পূর্ব পরিকল্পিত হামলা বলে ধারণা করা হচ্ছে, শুধু তাই নয় এর পূর্বে কুতুবজোম ইউনিয়নে মাছের প্রজেক্ট দখল করতে গিয়ে গণধোলাইয়ে আহত হয়ে বহু আওয়ামী লীগের নেতাকর্মীদেরকে আসামি করে মামলা দায়ের করে পৌর আওয়ামীলীগকে ধ্বংস করার চক্রান্ত করে এই আমজাদ হোসেন। আমরা এই সংবর্ধনা অনুষ্ঠান থেকে তার তীব্র নিন্দা জানাচ্ছি; সাথে সাথে প্রশাসনকে সঠিক তদন্ত করে এই মিথ্যা মামলা প্রত্যাহারের দাবি জানাচ্ছি।

বক্তব্যে কারানির্যাতিত ছাত্রলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন বলেন, বিনা অপরাধে আমরা আপন দুই ভাই কারাবরন করে আজ মুক্তি লাভ করেছি তাতে আমার দুঃখটা খুব একটা বেশি না, কারণ আমরা নৌকার পক্ষে কাজ করেছি তাই বিএনপি জামায়াতের লোকেরা সবসময় আমাদের বিরুদ্ধে ষড়যন্ত্রমুলক কর্মকান্ড করবেই। তবে আমার সবচেয়ে বেশি দুঃখটা হচ্ছে যে, আমার আর এক ভাই ২০১৭ সালে অকালে মৃত্যুবরণ করেন, তাকে পর্যন্ত এই মামলাবাজ বিএনপি ক্যাডার আমজাদ হোসেন বাদ দেই নাই। এটাই প্রমান করে যে, এটা একটা সম্পুর্ন মিথ্যা বানোয়াট এবং ভিত্তিহীন ও ষড়যন্ত্রমুলক মামলা।

সভাপতির বক্তব্যে মহেশখালী পৌরসভা ৯নং ওয়ার্ড আওয়ামী লীগের সভাপতি মুহাম্মদ উল্লাহ বলেন, আমরা জানি আমজাদ হোসেনের পুরো পরিবারই সরকারবিরোধী। বিএনপি’র আমলে মুক্তিযোদ্ধা সার্টিফিকেট করছে ৷ আমজাদ হোসেনের বড় ভাই মাওলানা ওসমান যোদ্ধাপরাধের দায়ে করা মামলায় কারাবরণ করে বর্তমানে জামিনে রয়েছে, তার আপন মামা বাদশা মিয়া সাবেক মেম্বার যোদ্ধাপরাধ মামলায় কারাগারে রয়েছে, একভাই জামাল হোসেন জামায়াত ইসলামীর নেতা, আমজাদ হোসেন নিজে একজন বিএনপি নেতা। তার এইসব মামলা মুক্তিযোদ্ধার নামে জামায়াত শিবিরের চক্রান্ত ছাড়া আর কিছু নয়।

তিনি আরও বলেন, বিএনপি ক্যাডার আমজাদ হোসেনের মুক্তিযোদ্ধা সনদ ভূঁয়া কিনা বিষয়টি গভীরভাবে তদন্তের জোর দাবি জানাচ্ছি ।

তার মামলা থেকে বাদ যায়নি পৌর যুবলীগের আহবায়ক মুহাম্মদ মামুন, পৌর ছাত্রলীগের সভাপতি মুহাম্মদ হাসান মুরর্শেদ। সংবর্ধনা সভায় অন্যদের মধ্যে বক্তব্য রাখেন গণমাধ্যমকর্মী এ কে রিফাত, কারানির্যাতিত যুবলীগ নেতা মোঃ একরাম, কারা নির্যাতিত ও সংবর্ধিত ছাত্রলীগ নেতা আনোয়ার হোসেন, জাহাঙ্গীর আলম, শামসুদ্দিন, তোফায়েল হোসেন, জসীম উদ্দিন, মাহবুব আলম মাবু।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

রায়পুরায় ” মুজিব : একটি জাতির রূপকার” বিনামূল্য দেখার সুযোগ করে দিলেন জাতীয় নেতা রাজু এমপি। সাদ্দাম উদ্দীন রাজ– রায়পুরা উপজেলা ” মুজিব : একটি জাতির রূপকার “ছবিটি রায়পুরা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংসদ পুত্র জনাব রাজীব আহমেদ পার্থের উদ্যোগে স্থানীয় দলীয় নেতাকর্মী, শিক্ষার্থী ও জনসাধারণকে স্থানীয় প্রেক্ষাগৃহ “ছন্দা” সিনেমা হলে ৫ দিন বিনামূল্যে দেখার ব্যবস্থা করে দেন নরসিংদী ৫ রায়পুরা আসনের সাংসদ সাবেক মন্ত্রী জনাব রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু এমপি। দলীয় সূত্রে জানা যায়, সংসদ সদস্য রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু’র ছেলে ও আ.লীগ নেতা রাজিব আহমেদ পার্থ তার নিজ উদ্যোগে এ প্রদর্শনের আয়োজন করেন। রায়পরা উপজেলার হাসনাবাদ এলাকায় অবস্থিত ছন্দা সিনেমা হলে ১৪ অক্টোবর থেকে ১৯ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ৫দিন প্রত্যেহ বিকাল ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত শো প্রদর্শন করা হবে। এসময় প্রত্যেক স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য আলাদাভাবে বিনামূল্যে এ শো দেখার ব্যবস্হা নেওয়া হয়েছে। এবিষয়ে রাজিব আহমেদ পার্থ প্রতিনিধিকে জানান, আগামী প্রজন্মকে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের বায়োপিক মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ চলচ্চিত্রটি বিনামূল্যে দেখার উদ্যোগ নিয়েছি। কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ছবির নির্মাতা শ্যাম বেনেগালকে। এ ছবিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও স্বাধীনতার সঠিক চিত্রটি তুলে ধরা হয়েছে। দর্শনার্থীরা ছবিটি দেখার পর তারা বঙ্গবন্ধু ও মাতৃভাষা এবং মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে। তিনি আরও বলেন, ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে বঙ্গবন্ধুর ডাকে স্বাধীনতা। পরবর্তীতে দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রকারীদের নীলনকশায় ৭৫’র কালোরাত্রিতে বঙ্গবন্ধু সহ সপরিবারে হত্যা সবকিছুই এ ছবিতে তুলে ধরা হয়েছে। আমার বিশ্বাস এ ছবিটি একবার দেখলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও দেশের সঠিক ইতিহাস জানতে এবং মুজিব আদর্শ ধারণ করতে পারবে। তাই বিনামূল্যে ছবিটি দেখার জন্য ৬ দিন ব্যাপী সকল স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও দর্শনার্থীদের জন্য ব্যবস্হা গ্রহণ করেছি। বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভে চলচ্চিত্রের প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। সিনেমাটি (শুক্রবার ১৩ অক্টোবর) সারাদেশে ১৫৩টি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে মুক্তি পায়। বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনায় বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাজেটের চলচ্চিত্র এটি। সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন ভারতের বিখ্যাত চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। মুম্বাইয়ের দাদাসাহেব ফিল্ম সিটি, তেজগাঁওয়ের পুরোনো বিমানবন্দর, গোপালগঞ্জসহ বেশকিছু জায়গায় সিনেমার দৃশ্যধারণ করা হয়েছে। সিনেমায় বঙ্গবন্ধু চরিত্রে রয়েছেন আরিফিন শুভ। বিভিন্ন চরিত্রে আরও আছেন নুসরাত ফারিয়া, নুসরাত ইমরোজ তিশা, দিলারা জামান, সিয়াম আহমেদ, জায়েদ খান, খায়রুল আলম সবুজ, ফেরদৌস, রিয়াজ, দীঘি, রাইসুল ইসলাম আসাদ, গাজী রাকায়েত, তৌকীর আহমেদ, মিশা সওদাগরসহ অনেকে।

Calendar

Calendar is loading...
Powered by Booking Calendar
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া, নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি, কপিরাইট 2022 ইং দৈনিক আলোকিত বশিশাল এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
ভুল তথ্যর জন্য সেই তথ্য দাতাই দায়ী থাকবে, কর্তৃপক্ষ কোন ভাবে দায়ী থাকবে না।
Theme Customize BY BD IT HOST