1. admin@dainiksangbaderkagoj.com : admin :
  2. mahadihasanchamak@gmail.com : Azizul islam : Azizul islam
রাজশাহীর বাগমারায় হাজার দুয়ারি জমিদার বাড়ী - দৈনিক সংবাদের কাগজ
২১শে জুন, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ৭ই আষাঢ়, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| বর্ষাকাল| শুক্রবার| সকাল ১১:০৮|

রাজশাহীর বাগমারায় হাজার দুয়ারি জমিদার বাড়ী

Reporter Name
  • Update Time : শুক্রবার, মার্চ ৪, ২০২২,
  • 55 Time View

 

তন্ময় দেবনাথ অনলাইন ডেস্ক

রাজশাহী জেলার বাগমারা উপজেলার যোগীপাড়া ইউনিয়নে অবস্থিত এক ঐতিহাসিক জমিদার বাড়ি, যা মূলত বীরকুৎসা জমিদার বাড়ি বা বীরকুৎসা পরগণা নামে পরিচিত।উপজেলা সদর ভবানীগঞ্জ থেকে ১৮ কিঃ দুরত্বে বাগমারা সীমানার শেষ প্রান্তে যোগীপাড়া ইউনিয়নের বীরকুৎসা গ্রাম অবস্থিত। নাটোর-সান্তাহার রেলপথের পাশে ৫০ বিঘা জমির উপর এই জমিদার বাড়ি অবস্থিত। বাড়িটির এক সময়ে হাজারটি দুয়ার ছিল বলে এর নামকরণ করা হয় হাজার দুয়ারী।নওগাঁ জেলার আমরুল ডিহির রাজা গোপাল ধাম তার মেয়ে প্রভাতী বালাকে ভারতের কাশী থেকে আসা বীরেশ্বর বন্দ্যোপাধ্যায়ের সাথে বিয়ে দেন এবং তার অধীনস্থ এই বীরকুৎসা পরগণাটি মেয়ে প্রভাতী বালা ও জামাই বীরেশ্বর বন্দ্যোপাধ্যায়ের নামে লিখে দেন। আর এই থেকেই এই জমিদার বাড়িটির জমিদারীর সূচনা হয়। ১৯৪৭ সালে বীরেশ্বর বন্দ্যোপাধ্যায়ের পরিবার ভারতের হুগলী চন্দনগরে চলে গেলে পরবর্তীকালে এই বাড়িটি সরকারের দখলে চলে আসে। তার ৫জন পুত্র ছিলেন। তারা হলেনঃ পরিমল, নির্মল, সুনীল, শ্যামল ও অমল। জমিদারের ১টি হাতী ও ৪টি লালবর্ণের ঘোড়া ছিল। হাতীতে চড়ে তিনি জমিদারী দেখাশুনা করতেন। জমিদারের ১৭টি নায়েব খাজনা আদায় ও হিসাব রাখতেন।হাজারদুয়ারী জমিদার বাড়ির দরজাগুলো সেগুন কাঠের তৈরী এবং সুন্দর কারুকাজ করা ছিলো।অ দরজাগুলো ছিল তিনটি স্তরে সাজানো। প্রথমে কাঠ, তারপর লোহার গ্রিল, এরপরে তা দামি কাঁচে মোড়ানো ছিলো। বীরেশ্বর বন্দ্যোপাধ্যায়ের দুই ভাই দুর্গা বাবু ও রমাঅ বাবু এই প্রাসাদেই থাকতেন।প্রাসাদের সামনে বাহারি ফুলের বাগান ছিল প্রাসাদের পশ্চিম দিকে খিড়কি দরজা পার হয়ে সান বাঁধানো একটি বিরাট পুকুর রয়েছে। এই পুকুরে শুধু জমিদার পরিবারই গোসল করত। প্রাসাদেরঅ ভেতরের এক পাশে ছিল জলসা ঘর। কলকাতা থেকে ভোলানাথ অপেরা এসে গান বাজনা করতো।পূর্ব দিকের দেউড়ির দুই পাশে ছয় জন করে বারোঅঅ জন বরকন্দাজ থাকত। দেউড়ির পাশে ছিল মালখানা। এর কিছু দূরে ছিল মহাফেজখানা। প্রাসাদের পূর্বের দেউড়ি পার হয়ে সামনে আরেকটি বড় পুকুর আছে, সেখানে গোসলঅপ করত আমলা, পেয়াদা ও বরকন্দাজরা। এই পুকুরটি এখন বেদখল হয়ে গেছে। বকুলতলার পাশে খাজনা আদায়ের ঘর ছিল, যা এখন বীরকুৎসা তহসিল অফিস নামে পরিচিত। এর পাশের পূজা মন্ডপটিতে বসানো হয়েছে পোস্ট অফিস।বর্তমানে জমিদার বাড়ির ভৌত কাঠামো সংরক্ষণের অভাবে নষ্ট হয়ে যাচ্ছে।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

রায়পুরায় ” মুজিব : একটি জাতির রূপকার” বিনামূল্য দেখার সুযোগ করে দিলেন জাতীয় নেতা রাজু এমপি। সাদ্দাম উদ্দীন রাজ– রায়পুরা উপজেলা ” মুজিব : একটি জাতির রূপকার “ছবিটি রায়পুরা উপজেলা আওয়ামী লীগের যুগ্ম সাধারণ সম্পাদক ও সাংসদ পুত্র জনাব রাজীব আহমেদ পার্থের উদ্যোগে স্থানীয় দলীয় নেতাকর্মী, শিক্ষার্থী ও জনসাধারণকে স্থানীয় প্রেক্ষাগৃহ “ছন্দা” সিনেমা হলে ৫ দিন বিনামূল্যে দেখার ব্যবস্থা করে দেন নরসিংদী ৫ রায়পুরা আসনের সাংসদ সাবেক মন্ত্রী জনাব রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু এমপি। দলীয় সূত্রে জানা যায়, সংসদ সদস্য রাজিউদ্দিন আহমেদ রাজু’র ছেলে ও আ.লীগ নেতা রাজিব আহমেদ পার্থ তার নিজ উদ্যোগে এ প্রদর্শনের আয়োজন করেন। রায়পরা উপজেলার হাসনাবাদ এলাকায় অবস্থিত ছন্দা সিনেমা হলে ১৪ অক্টোবর থেকে ১৯ অক্টোবর পর্যন্ত মোট ৫দিন প্রত্যেহ বিকাল ৩ টা থেকে সন্ধ্যা ৬ টা পর্যন্ত শো প্রদর্শন করা হবে। এসময় প্রত্যেক স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থীদের জন্য আলাদাভাবে বিনামূল্যে এ শো দেখার ব্যবস্হা নেওয়া হয়েছে। এবিষয়ে রাজিব আহমেদ পার্থ প্রতিনিধিকে জানান, আগামী প্রজন্মকে হাজার বছরের শ্রেষ্ঠ বাঙালি জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবর রহমানের বায়োপিক মুজিব: একটি জাতির রূপকার’ চলচ্চিত্রটি বিনামূল্যে দেখার উদ্যোগ নিয়েছি। কৃতজ্ঞতা ও ধন্যবাদ জ্ঞাপন করছি বঙ্গবন্ধুর কন্যা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা ও ছবির নির্মাতা শ্যাম বেনেগালকে। এ ছবিতে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও স্বাধীনতার সঠিক চিত্রটি তুলে ধরা হয়েছে। দর্শনার্থীরা ছবিটি দেখার পর তারা বঙ্গবন্ধু ও মাতৃভাষা এবং মুক্তিযুদ্ধের সঠিক ইতিহাস জানতে পারবে। তিনি আরও বলেন, ভাষা আন্দোলন থেকে শুরু করে বঙ্গবন্ধুর ডাকে স্বাধীনতা। পরবর্তীতে দেশ বিরোধী ষড়যন্ত্রকারীদের নীলনকশায় ৭৫’র কালোরাত্রিতে বঙ্গবন্ধু সহ সপরিবারে হত্যা সবকিছুই এ ছবিতে তুলে ধরা হয়েছে। আমার বিশ্বাস এ ছবিটি একবার দেখলে বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান ও দেশের সঠিক ইতিহাস জানতে এবং মুজিব আদর্শ ধারণ করতে পারবে। তাই বিনামূল্যে ছবিটি দেখার জন্য ৬ দিন ব্যাপী সকল স্কুল-কলেজের শিক্ষার্থী ও দর্শনার্থীদের জন্য ব্যবস্হা গ্রহণ করেছি। বৃহস্পতিবার (১২ অক্টোবর) সকালে রাজধানীর আগারগাঁওয়ে বাংলাদেশ ফিল্ম আর্কাইভে চলচ্চিত্রের প্রিমিয়ার শো অনুষ্ঠানে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা শুভ উদ্বোধন ঘোষণা করেন। সিনেমাটি (শুক্রবার ১৩ অক্টোবর) সারাদেশে ১৫৩টি প্রেক্ষাগৃহে একযোগে মুক্তি পায়। বাংলাদেশ-ভারতের যৌথ প্রযোজনায় বাংলাদেশের চলচ্চিত্র ইতিহাসে সবচেয়ে বড় বাজেটের চলচ্চিত্র এটি। সিনেমাটি নির্মাণ করেছেন ভারতের বিখ্যাত চিত্র পরিচালক শ্যাম বেনেগাল। মুম্বাইয়ের দাদাসাহেব ফিল্ম সিটি, তেজগাঁওয়ের পুরোনো বিমানবন্দর, গোপালগঞ্জসহ বেশকিছু জায়গায় সিনেমার দৃশ্যধারণ করা হয়েছে। সিনেমায় বঙ্গবন্ধু চরিত্রে রয়েছেন আরিফিন শুভ। বিভিন্ন চরিত্রে আরও আছেন নুসরাত ফারিয়া, নুসরাত ইমরোজ তিশা, দিলারা জামান, সিয়াম আহমেদ, জায়েদ খান, খায়রুল আলম সবুজ, ফেরদৌস, রিয়াজ, দীঘি, রাইসুল ইসলাম আসাদ, গাজী রাকায়েত, তৌকীর আহমেদ, মিশা সওদাগরসহ অনেকে।

Calendar

Calendar is loading...
Powered by Booking Calendar
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া, নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি, কপিরাইট 2022 ইং দৈনিক আলোকিত বশিশাল এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
ভুল তথ্যর জন্য সেই তথ্য দাতাই দায়ী থাকবে, কর্তৃপক্ষ কোন ভাবে দায়ী থাকবে না।
Theme Customize BY BD IT HOST