1. admin@dainiksangbaderkagoj.com : admin :
  2. mahadihasanchamak@gmail.com : Azizul islam : Azizul islam
বিশ্বের প্রধান মন্ত্রীর মাঝে সব চেয়ে মর্মান্তিক ঘটনা, যার জীবনে ঘটেছে।সে হলো বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা - দৈনিক সংবাদের কাগজ
২১শে মে, ২০২৪ খ্রিস্টাব্দ| ৭ই জ্যৈষ্ঠ, ১৪৩১ বঙ্গাব্দ| গ্রীষ্মকাল| মঙ্গলবার| দুপুর ১:৩৪|

বিশ্বের প্রধান মন্ত্রীর মাঝে সব চেয়ে মর্মান্তিক ঘটনা, যার জীবনে ঘটেছে।সে হলো বাংলাদেশের প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা

Reporter Name
  • Update Time : বৃহস্পতিবার, মার্চ ১০, ২০২২,
  • 52 Time View

Md Delower Hossain dhanbari Tangail gala

 

 

 

এমন দেশের প্রধান মন্ত্রী জননেত্রী শেখ হাসিনা। যে দেশের মাটিতে, কিছু বিপদ ঘামী উশৃংখল সেনা অফিসারদের দ্বারা। পরিবারে সব সদস্য, শাহাদত বরণ করে। ১৯৭৫ সালে ১৫ আগষ্ট, বাংলাদেশের মাটি রক্তাক্ত হয়েছিল, পরিবারের সবার রক্তে।নিথর দেহ পরেছিলো,ধানমন্ডি বাসাতে। আত্মচিৎকার আহাজারি, মর্মান্তিক এক দৃশ্য। একের পর এক হত্যা করে,ঘাতকরা পরিবারকে করতে চেয়েছিলো নির্বংশ। বিদেশ থাকার কারণে বেচে যায়,সুযোগ্য দুই কন্যা।মাননীয় প্রধান মন্ত্রী শেখ হাসিনা আর শেখ রেহেনা। বাংলার আকাশ বাংলার বাতাস, ভারী হয়ে যায়। চাপা কান্না এ জাতি সেদিন,নিরবে নিরবে কাদে হায়। কিছু করার ছিলো না সেদিন,প্রতিবাদের কোন ভাষা। ঘাতকরা অনেক শক্তি শালী ছিলো যে।একের পর এক হত্যা করে,এদের অনেক নেতা।জাতির পিতা বঙ্গবন্ধু সকল,অবদান।মোছে ফেলতে চেয়ে ছিলো সে দিন। এ দেশের কিছু মীরজাফর বেঈমান। সত্যের জয় অনিবার্য, সত্য বেচে রয়।মিথ্যা নিয়ে লড়াই করলে,কঠিন পরিনতি হয়।মায়ের আদর বাবার স্নেহ ভাইয়ের মমতা,ভুলতে পারেনা মাননীয় প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা। কনিষ্ঠ ছোট ভাই, শেখ রাসেলের কথা।সবার আদরের ছোট ভাই, ছিলো চোখের মনি। সেই ভাইকে হত্যা করতে ঘাতকের বুক একটু কাপেনি।চিৎকার আর বুলেটের শব্দে, ঘুম থেকে জেগে ওঠে। কিছু বুঝার আগেই রাসেল,রক্ত গঙ্গা দেখে।পরিবারের সব সদস্য ফ্লোরে পরে আছে, বুঝতে পারে রাসেল কেউ আর বেচে নেই।তবুও রাসেল মাকে খোঁজে, মা মা বলে ডাকে। রক্ত নিয়ে হলি খেলায়, সেদিন মেতে উঠেছিলো।এদেশের কিছু সেনা অফিসাররা।১১ বৎসরের শিশু রাসেলকে তারা বাচতে দিলনা। নির্দোশ রাসেলের তাজা প্রাণ কেরে নিয়ে এ জাতিয় ইতিহাসে এক জগন্য,হত্যা কান্ড ঘটিয়ে, জাতীকে কলঙ্কিত করলো তারা । আপু আপু ডাকে না আর,পায় না রাসেলকে। ছোট ভাইয়ের কথা মনে হলে,অশ্রুতে বুক ভাসে। মায়ের মত আপন,কেউ তো হয় না ভবে।সেই আজ শুধুই স্মৃতি, খোঁজে পায়না মাকে।বাবার আদর বাবার স্নেহ, ভুলবার মত না।সেই বাবা আজ হারিয়ে গেছে, কোন দিন আসবে না।ভাইয়ের মমতা হাসি মুখ, চোখে সামনে ভাসে। সবাই তারা প্রান হারিয়েছে, ঘাতকের বুলেটে।এমন নিষ্ঠুর ইতিহাস, প্রধানমন্রী জীবনে। ভুলতে গিয়ে ভুলতে পারেনা,অশ্রুতে বুক ভাসে। বিশ্বের যত প্রধানমন্রী আছে,সবার চেয়ে বেশি বেদনাদায়ক জীবন। বাংলাদেশের প্রধানমন্রী,শেখ হাসিনার জীবন।

Please Share This Post in Your Social Media

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

More News Of This Category

Calendar

Calendar is loading...
Powered by Booking Calendar
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া, নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি, কপিরাইট 2022 ইং দৈনিক আলোকিত বশিশাল এর সকল স্বত্ব সংরক্ষিত।
ভুল তথ্যর জন্য সেই তথ্য দাতাই দায়ী থাকবে, কর্তৃপক্ষ কোন ভাবে দায়ী থাকবে না।
Theme Customize BY BD IT HOST